Politics

[Politics][bleft]

West Bengal

[West Bengal][grids]

World

[World][bsummary]

National

[National][twocolumns]

ডান্স দিওয়ানের বিজয়ী পীযূষ গুরভলে নিজের যাত্রা নিয়ে কথা বললেন

  


 


নিউজ ডেস্ক: জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ডান্স দিওয়ানের  বিজয়ী  পীযূষ গুরভেলে এবং কোরিওগ্রাফার রূপেশ সনি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে তাদের দুজনের যাত্রা নিয়ে কথা বলেন।


 

জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ডান্স দিওয়ানে  রবিবার একটি গ্র্যান্ড ফিনালে পর্বের পর শেষ হয়ে গিয়েছে যা নৃত্যশিল্পী পীযূষ গুরভেলে এবং কোরিওগ্রাফার রূপেশ সোনিকে বিজয়ী ঘোষণা করেছেন।  নৃত্যশিল্পী-কোরিওগ্রাফার যুগল শোতে যাত্রার শুরু থেকেই দুজন দুজনের প্রিয় ছিলেন।  বিচারক মাধুরী দীক্ষিত, ধর্মেশ ইয়েলান্দে এবং তুষার কালিয়াও শো চলাকালীন দুজনের জন্য তাদের প্রশংসা প্রকাশ করেছিলেন।


 সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আড্ডায় পীযূষ এবং রূপেশ  বলেন আমরা সত্যিই খুশি।শোতে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকেরই লক্ষ্য ট্রফি বাড়িতে নিয়ে যাওয়া।  সুতরাং এটি জয় করা আশ্চর্যজনক ছিল।



 তাদের জয়ের দৃষ্টিকোণ থেকে তাদের যাত্রা বর্ণনা করতে বলা হলে পীযূষ বলেন আমাদের যাত্রায় সবার মতোই অনেক চড়াই -উতরাই ছিল। একটা সময় ছিল যখন আমাদের পারফরম্যান্স ফ্লপ হচ্ছিল।এর পরে আমরা বেশ ভয় পেয়েছিলাম।কিন্তু যাত্রাটা অনেক মজার ছিল এবং আমি রূপেশ ভাইয়ের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। এটি সত্যিই একটি দুর্দান্ত যাত্রা ছিল।


 শো জেতার পর তারা একে অপরকে কী বলেছিল জানতে চাইলে পীযূষ বিশেষ মুহূর্তের দিকে ফিরে তাকালেন। তারা তখন বললেন আমরা মঞ্চে একে অপরকে কিছু বলিনি কারণ আমরা খুব মর্মাহত ছিলাম। আমরা শুধু একে অপরকে জড়িয়ে ধরেছিলাম। আমাদের দুজনের মধ্যে এই পারস্পরিক বোঝাপড়া রয়েছে যে আমাদের প্রচেষ্টা বাস্তবায়িত হয়েছে।  সুতরাং আমাদের একে অপরকে কিছু বলতেও হয়নি।


এছাড়া বলিউড কিংবদন্তি মাধুরী দীক্ষিতের সামনে তাদের পারফর্ম করার অভিজ্ঞতাও দুজনে শেয়ার করেছেন।



এছাড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অনেক সেলিব্রেটি। যাইহোক শোটির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলির মধ্যে একটি ছিল যখন শোয়ের লাভ স্পেশাল পর্বে সিদ্ধার্থ শুক্লা এবং শেহেনাজ গিল উপস্থিত হয়েছিল। সিদ্ধার্থতের অকাল মৃত্যুর আগে এটি টিভিতে তার শেষ দেখা ছিল।এই পর্বে পীযূষ এবং শেহেনাজ মঞ্চে একটি ধীরগতির নৃত্য পরিবেশন করেছিলেন সেইসঙ্গে তার ইনস্টাগ্রামের জন্য একটি রিলের অভিনয় করেছিলেন।



 সিদ্ধার্থ এবং শেহেনাজের সঙ্গে মঞ্চ ভাগ করে নেওয়ার অভিজ্ঞতার কথা উল্লেখ করে পীযূষ বলেন আমি সিদ্ধার্থ স্যারের সঙ্গে মঞ্চ শেয়ার করতে, কথা বলতে এবং ছবি তুলতে পেরে খুব খুশি হয়েছিলাম কারণ সেদিন তিনি আমাকে অনেক ইতিবাচক শক্তি দিয়েছিলেন।তিনি আনন্দের সঙ্গে সবাইকে স্বাগত জানিয়ে হাসছিলেন।আমি শেহেনাজ ম্যামকে ধন্যবাদ জানাতে চাই কারণ তিনি আমাকে আগেই বলেছিলেন যে তিনি ভেবেছেন আমি জিতব  এবং আমি জিতেছি।কিন্তু আমি সত্যিই দুঃখিত যে সিদ্ধার্থ স্যার আর আমাদের মাঝে নেই। এটা আমাদের জন্য খুবই মর্মান্তিক ছিল যে তিনি আমাদের শোতে এসেছিলেন।  এটি একটি ভাল মুহূর্ত ছিল এবং খবরটি শোনার পর আমরা খুব মর্মাহত হয়েছিলাম।


No comments: